২০১৯ সালের ৯ জুলাই বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে ঘরে ফেরে ভারতীয় দল। ওই ম্যাচ শেষে একেবারে অন্তরালে চলে যান ভারতের সর্বকালের অন্যতম সেরা অধিনায়ক মাহেন্দ্র সিং ধোনী। গেল এক বছরে কোনোভাবেই তার ধারেকাছে ঘেঁষতেও পারেননি কেউই।

ভারতীয় ক্রিকেটপাড়া থেকে গণমাধ্যম সর্বত্রই গুঞ্জন, যেকোনো দিন অবসরের ঘোষণা দিতে পারেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক। যদিও গেল এক বছরেও এ ধরণের কোনো ঘোষণা দেননি ধোনী। তবে তার দীর্ঘদিনের সতীর্থ আশিষ নেহরা মনে করেন, ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ খেলে ফেলেছেন ধোনী।

স্টার স্পোর্টসের একটি অনুষ্ঠানে এসে সাবেক এই পেসার বলেন, ধোনীকে আমি যতটুকু চিনি, ভারতের হয়ে খুশি মনেই সে তার ক্যারিয়ারের ইতি টেনেছে। তার এখন আর নিজেকে প্রমাণ করার কিছু নেই। আমরা কিংবা গণমাধ্যম হয়তো অনেককিছু বলবে, আমরা আলোচনা করছি কারণ সে এখনো অবসরের ঘোষণা দেয়নি। তবে ধোনী কেবল নিজেই জানে তার চিন্তাভাবনা আসলে কি?

এর আগে ভারতীয় কোচ রবি শাস্ত্রী বলেছিলেন, এবারের আইপিএলে ফিটনেস কিংবা পারফরম্যান্স দিয়ে নিজেকে প্রমাণ করতে পারলেই কেবল ভারতীয় দলে জায়গা মিলবে ধোনীর। যদিও এ কথার সঙ্গে একেবারেই একমত নন আশিষ নেহরা।

তিনি বলেন, আপনি যদি কোচ, অধিনায়ক কিংবা নির্বাচক হন, ধোনী যদি খেলতে প্রস্তুত থাকে তাহলে একাদশে সে থাকবে সবার আগে। ওর নিজেকে প্রমাণ করার কিছুই নেই। তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার দেখেন, এই আইপিএলের পারফরম্যান্সে ওর কিছুই আসে যায়না। আমি কোনভাবেই মনে করিনা, আইপিএল ধোনীকে বিচার করার মতো কোন প্ল্যাটফর্ম হতে পারে।

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেই ম্যাচে ভারত হারলেও, ফিফটি হাঁকান ধোনী। সে দিকে ইঙ্গিত করে নেহরা বলেন, দেখুন ওর শেষ ম্যাচেও সে যতক্ষণ মাঠে ছিল সবাই আশা করেছিল ম্যাচটা ভারতই জিতবে। সে আউট হওয়ার পরই সবাই আশা ছেড়ে দেয়। এর মানে শেষ ম্যাচ পর্যন্ত সে নিজের টপ ফর্মে ছিল, কেউ তার উপর আস্থা হারায়নি।

 

(মূল খবরটি পড়ুন)

Leave a reply

Please enter your comment!
Please enter your name here